মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১
খেলোয়াড় বাছাই দ্বন্দ্ব

মুক্তাগাছায় ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা পন্ড

মুক্তাগাছা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি
  ১১ জুলাই ২০২৪, ০০:০০
মুক্তাগাছায় ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা পন্ড

গ্যালারি ভর্তি দর্শক। খেলা দেখার অধীর আগ্রহে সবাই। দর্শকদের মধ্যে টানটান উত্তেজনা। কখন শুরু হবে খেলা। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহমুদা হাসানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে খেলা উদ্বোধন করেন সংসদ সদস্য কৃষিবিদ নজরুল ইসলাম।

খেলা শুরুর পূর্বেই খেলোয়াড় বাছাই নিয়ে শুরু হয় জটিলতা। পরে সমঝোতার মাধ্যমে শুরু হয় খেলা। কিন্তু প্রথমার্ধের খেলা শেষ হলেও দ্বিতীয়ার্ধের সময় পন্ড হয়ে গেছে ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা অনূর্ধ্ব ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল ম্যাচ।

মঙ্গলবার উপজেলার নন্দীবাড়ী এলাকায় শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে পৌর একাদশ বনাম ঘোগা ইউনিয়ন পরিষদের মধ্যে অনুষ্ঠিত ফাইনাল খেলায় এ ঘটনা ঘটেছে।

খেলা অনুষ্ঠিত হওয়ার পূর্বেই পৌর একাদশ প্রতিদ্বন্দ্বী দলের দুজন খেলোয়াড় নিয়ে আপত্তি জানায়। এতেই শুরু হয় জটিলতা। বিরতির আগে ওই দুইজন খেলোয়াড় খেলতে পারবে না শর্তে শুরু হয় খেলা। পরে প্রথমার্ধ খেলা শেষ হয় গোল শূন্য। দ্বিতীয়ার্ধে ঘোগা ইউনিয়ন ওই দুইজন খেলোয়াড় মাঠে নামাতে গেলে হয় বিপত্তি। এতে পৌর একাদশের খেলোয়াড় ওই দুই পেস্নয়ার নিয়ে খেলা খেলবে না বলে আপত্তি জানায়। অপরদিকে ঘোগা ইউনিয়ন পূর্বের সমঝোতা মোতাবেক ওই দুইজন পেস্নয়ার ছাড়া খেলবে না বলে মাঠ ত্যাগ করে। সেখানেই যত বিপত্তি। উৎসুক জনতা শুরু করে দৌড়াদৌড়ি। দুইপক্ষের দর্শকদের মধ্যে উত্তেজনার সৃষ্টি হলে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পুলিশ চেষ্টা চালায়। তবে হুড়াহুড়ির সময় ইট-পাটকেল নিক্ষেপের খবরও পাওয়া যায়। দৌড়াদৌড়ি শুরু হলে কয়েকজন দর্শক আহত হন। আহতদের মুক্তাগাছা হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি মাহমুদ হাসান বলেন, খেলোয়াড় যাচাই-বাছাইয়ের জন্য একটা কমিটি করে দেওয়া হয়েছে। তারা জন্ম নিবন্ধন ও শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ যাচাই-বাছাই করে স্থানীয় ও বয়স নির্ধারণ করার কথাও বলেন তিনি।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে