logo
শনিবার, ০৮ আগস্ট ২০২০, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৬

  বিনোদন রিপোর্ট   ০৫ জুলাই ২০২০, ০০:০০  

আসিফের বিরুদ্ধে এবার মানহানির মামলা

আসিফের বিরুদ্ধে এবার মানহানির মামলা
আসিফ আকবর
বাংলা সংগীতের 'যুবরাজ'খ্যাত কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবরের বিরুদ্ধে আবারও মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাজধানীর হাতিরঝিল থানায় তার বিরুদ্ধে মামলা করেন আরেক কণ্ঠশিল্পী দিনাত জাহান মুন্নি। তিনি মানহানির অভিযোগ এনে মামলাটি দায়ের করেছেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

মামলা প্রসঙ্গে দিনাত জাহান মুন্নি গণমাধ্যমকে বলেন, ?'মানুষের পিঠ যখন দেয়ালে ঠেকে যায় তখনই সে মামলা করতে বাধ্য হয়। কয়েক দিন ধরে আমাকে নিয়ে ফেসবুকে ইঙ্গিতপূর্ণ স্ট্যাটাস দিয়ে যাচ্ছেন আসিফ। সেখানে তার ভক্তরা আমাকে নিয়ে বাজে মন্তব্য করেই যাচ্ছেন। আসিফকে সাইবার ক্রাইম ইউনিটের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা সতর্ক করেছেন। তাতেও কোনো সমাধান না পেয়ে অবশেষে বাধ্য হয়ে মামলা করেছি।'

মুন্নি আরও বলেন, 'দীর্ঘদিন ধরে তার সঙ্গে কাজ করেছি। আগেও বিভিন্ন পত্রিকায় সাক্ষাৎকারেও এমন কথা বলেছেন। সহশিল্পী ও শিল্পী পরিবারের একজন হয়ে আমি কিংবা আমার পরিবার তার কাছ থেকে এমন অপমান আশা করিনি।'

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সাইবার ক্রাইম অফিসে অভিযোগ জানাতে গেলে মুন্নিকে পাঠানো হয় হাতিরঝিল থানায়। সেখানে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন গায়িকা। অভিযোগের প্রেক্ষিতে নেওয়া হয়েছে মামলা।

মামলার বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে আসিফ আকবর বলেন, 'কোনো ভয়ভীতি দেখিয়ে আমাকে থামানো যাবে না। তাছাড়া মুন্নিকে নিয়ে সরাসরি কোনো স্ট্যাটাস দিইনি আমি। তিনি কেন নিজেকে জড়িয়ে নিলেন? জেল খাটার অভিজ্ঞতা আমার আছে। তবে বিশ্বাসঘাতকদের চেহারা কেমন হয় মানুষকে সেটা দেখাতে চাই।'

এদিকে দিনাত জাহান মুন্নি ও আসিফ আকবরের মতো জনপ্রিয় শিল্পীদের প্রকাশ্য দ্বন্দ্বের নেতিবাচক প্রভাব সংগীতাঙ্গনে পড়বে বলেই মনে করছেন নেটিজেনদের একাংশ। তাছাড়া দুজনকেই সংযত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন সিনিয়র শিল্পীরা।

মামলা হওয়ার খবরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ছেয়ে গেছে আসিফ ভক্তদের প্রতিক্রিয়ায়। এ নিয়ে একের পর এক ক্ষোভ জানাচ্ছেন তারা। তবে সবাইকে শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়ে আসিফ আকবর তার ফেসবুকে পেজে লিখেন, 'আলহামদুলিলস্নাহ। সবাইকে সংযত থাকার জন্য অনুরোধ করছি। ভালোবাসা অবিরাম।'

তবে মিডিয়া পাড়ায় আসিফ ও মুন্নির এক সময় দারুণ সম্পর্ক ছিল। একে অপরের সঙ্গে গানও গেয়েছেন বহুবার। তার বেশিরভাগই ঢাকাই চলচ্চিত্রে। প্রায় দেড় ডজনেরও বেশি চলচ্চিত্রের গানে একসঙ্গে কণ্ঠ দিয়েছেন তারা। এছাড়া তিনটির মতো দ্বৈত অ্যালবামেও একসঙ্গে কাজ করেছেন। বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে একে অন্যের প্রশংসা করতেও শোনা গিয়েছে তাদের। তবে হঠাৎ করেই সব এলোমেলো হয়ে গেল।

১৯৯৭ সাল থেকে পেস্নব্যাকে কণ্ঠ দিলেও ২০০০ সালে মুন্নির প্রথম অ্যালবাম প্রকাশিত হয়। অসাধারণ গায়কির জন্য তিনি পাঁচবার জাতীয় শিশু-কিশোর প্রতিযোগিতার শ্রেষ্ঠ পুরস্কার পেয়েছেন। এছাড়া তিনি বাংলাদেশের অন্যতম শ্রোতা প্রিয় গীতিকার কবির বকুলের সহধর্মিণী।

অপরদিকে ২০০১ সালে প্রকাশিত 'ও প্রিয়া তুমি কোথায়' গানের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশি সংগীতপ্রেমিদের মনে স্থায়ী আসন গড়েন আসিফ আকবর। একাধিকবার পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। ২০১৯ সালে তিনি অভিনেতা হিসেবেও আত্মপ্রকাশ করেছেন।

আসিফ এর আগে ২০১৮ সালের ৪ জুন গীতিকার ও সুরকার শফিক তুহিনের করা তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) আইনের মামলায় গ্রেপ্তার হন। তবে পাঁচদিন পর কারাগার থেকে মুক্ত হন তিনি। সেই মামলাটি এখনো চলছে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে