logo
বুধবার, ০৩ জুন ২০২০, ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ০৯ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০  

সাক্ষাৎকার

বিপদে শিল্পীদের পাশে থাকতে পেরে ভালো লাগছে

চিত্রনায়ক জায়েদ খান। দ্বিতীয়বারের মতো বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন। অভিনয়ের চেয়ে শিল্পী সমিতি নিয়েই তিনি বেশি ব্যস্ত। দেশে করোনার প্রাদুর্ভাবে সবাই যখন ঘরবন্দি, তখন তিনি ছুটে চলেছেন অসহায় শিল্পীদের দ্বারে দ্বারে। পৌঁছে দিচ্ছেন সাহায্য। এ পর্যন্ত কয়েকবার অসহায় শিল্পীদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেছেন। কথা হলো তার সঙ্গে...

বিপদে শিল্পীদের পাশে থাকতে পেরে ভালো লাগছে
জায়েদ খান
শিল্পীদের পাশে শিল্পী সমিতি...

করোনার এই পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি এ পর্যন্ত চারবার সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছে। করোনা প্রতিরোধে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রথমবার হ্যান্ডগস্নাভস, মাস্ক ও স্যানিটাইজার বিতরণ করা হয়েছে। এরপর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, অভিনেতা অনন্ত জলিল ও ডিপজলের সহযোগিতায় পর্যায়ক্রমে তিনবার নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য বিতরণ করা হয়েছে। সামনে আরও সাহায্য করা হবে।

যারা পাচ্ছেন সহযোগিতা...

শিল্পী সমিতির বাইরেও অনেক অসচ্ছল শিল্পী, সহশিল্পী, প্রডাকশন-লাইটিংয়ের লোক ছাড়াও যারা চলচ্চিত্রের সঙ্গে জড়িত, এফডিসিতে নানা কাজ করেন তাদের সহযোগিতা করা হয়েছে। এদের মধ্যে এমনও শিল্পী আছেন যারা লজ্জায় নিজেদের অভাবের কথা বলতে পারেন না। ত্রাণ নিতে এসে নিতেও পারেন না। তাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে পণ্য পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। এজন্য কেউ কেউ আবেগে আপস্নুত হয়ে বুকে জড়িয়ে ধরেছেন। আমার ভালো লাগছে বিপদে তাদের পাশে থাকতে পারছি।

আলোচনা-সমালোচনা...

প্রতিটি ভালো কাজের প্রশংসা হয়, পাশাপাশি কিছু সালোচনাও থাকে। এই পরিস্থিতিতে যখন সবাই সতর্ক থাকছেন, তখন নিজের জীবনের নিরাপত্তার গুরুত্ব না দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে পরিশ্রম করে যাচ্ছি। দায়িত্বের কারণে না করে পারি না। সবাই জানেন, কিছুদিন আগে চিত্রনায়ক জাভেদ ভাইয়ের অপারেশন হয়েছে। শুরু থেকে এ পর্যন্ত আমরা তার পাশে আছি। তাকে আর্থিকভাবেও সাহায্য করেছি। সবাই দেখছেন আমরা কী করছি তবুও কিছু কিছু লোক আমাদের এসব কাজের সমালোচনা করছেন। বলেছেন এসব নাকি লোক দেখানোর জন্য।

নিজ এলাকায়...

আমি ছোটবেলা থেকেই সাংগঠনিক। আমার নিজের এলাকা পিরোজপুরে 'সাপোর্ট' নামে একটি সামাজিক সংগঠন আছে। আমি এই সংগঠনের সভাপতি। এই সংগঠনের মাধ্যমে সেখানেও অসহায় লোকদের মধ্যে দুই দফায় ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। নিজে না যেতে পারলেও ঢাকা থেকেই সব তদারকি করতে হচ্ছে আমাকে। এর আগে শীতের সময় এলাকায় কম্বল বিতরণ করেছিলাম। সাপোর্টের মাধ্যমে নানাভাবে আমরা অসহায়দের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করি।

নতুন চলচ্চিত্র...

'টেনশন' নামে নতুন একটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছি। এটি পরিচালনা করছেন মালেক আফসারী। গল্প তৈরি করা আছে। নায়িকা এখনো চূড়ান্ত হয়নি। করোনার কারণে এখন ছবিটি নিয়ে আগানো সম্ভব হচ্ছে না। সব কিছু স্বাভাবিক হলেই এর কাজ শুরু হবে। আজ শবেবরাতের রাত, আলস্নাহ যেন এই রাতের বদৌলতে করোনা থেকে আমাদের মুক্ত করেন। স্বাভাবিক জীবন ফিরিয়ে দেন।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে