logo
বৃহস্পতিবার, ০৬ আগস্ট ২০২০, ২২ শ্রাবণ ১৪২৬

  রামগঞ্জ (লক্ষ্ণীপুর) প্রতিনিধি   ০৪ জুলাই ২০২০, ০০:০০  

রামগঞ্জে সেবায় নজির স্থাপন করলেন শিক্ষক

ভালোবাসা ও মানবিকতার অনুপম আদর্শ স্থাপন করলেন লক্ষ্ণীপুর জেলা রামগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম শোশালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সেলিম হোসেন। তিনি করোনায় ও করেনা উপসর্গে মৃতদের লাশ দাফন ও এলাকার মানুষকে হোমিও চিকিৎসার মাধ্যমে একের পর এক সেবা দিয়ে যাচ্ছেন।

দেশব্যাপী করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে করোনা পজিটিভ কিংবা উপসর্গ নিয়ে মৃতু্য হলে লাশের গোসল, জানাজা ও দাফন নিয়ে শুধু এলাকাবাসী নয় প্রশাসনও দুশ্চিন্তায় পড়েন। প্রতিবেশীদের চাপের মধ্যে গৃহবন্দিও হয়েছেন মৃত ব্যক্তির স্বজনরা। এ অবস্থায় রোদ, বৃষ্টি, ঝড়সহ নানা প্রতিকূলতা উপেক্ষা করে সহকর্মী ও মসজিদের ইমামের সমন্বয়ে শিক্ষক সেলিম হোসেনের নেতৃত্বে ১৫ জন মানবিক সদস্য উপস্থিত হন ইউএনও কার্যালয়ে। ইউএনও তড়িৎগতিতে ইসলামি ফাউন্ডেশনে সেলিম মাস্টারকে সভাপতি করে গঠন করেন লাশ দাফন কমিটি। জীবনের মায়া ত্যাগ করে সুরক্ষিত উপকরণ ছাড়াই শুরু হয় লাশ দাফন কমিটির কার্যক্রম।

বৃহস্পতিবার লাশ দাফন কমিটির সদস্য ইউনুস মাস্টার বলেন, এ পর্যন্ত করোনা পজিটিভ কিংবা উপসর্গে মৃত মোট ৩১ জনের লাশ দাফন করা হয়েছে। উপজেলা লাশ দাফন কমিটির সভাপতি সেলিম হোসেন বলেন, 'অনেকে ভয়ে জানাজায় আসছেন না, আমরা তাদের পাশে দাঁড়িয়েছি। উপজেলার যেখানেই আমাদের খবর দেওয়া হবে, আমরা সেখানে গিয়েই মৃত ব্যক্তির লাশ দাফন করে আসব।'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে