রোববার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১

অবাক বিশ্ব, খবর পড়ছে রোবট লিসা

যাযাদি ডেস্ক
  ১১ জুলাই ২০২৩, ১২:৩৩
অবাক বিশ্ব, খবর পড়ছে রোবট লিসা

প্রযুক্তি দিন দিন তার সীমানা ছাড়িয়ে যাচ্ছে। প্রতিদিন নতুন নতুন আবিষ্কার মানুষের সামনে হাজির করছে। মানুষের মতই কাজ করার ক্ষমতা অর্জন করছে। অনেক ক্ষেত্রে মানুষের চেয়ে বেশি কাজ করার দক্ষতা দেখিয়ে যাচ্ছে। মানুষের তৈরি রোবট যখন টিভিতে খবর পড়া শুরু করলো তখন সেটের সামনে বসে থাকা অনেকে প্রথমেই বুঝতেই পারেননি । পরে যখন টের পেলেন খবর পড়ছে বাস্তবে কোনো নারী নয়, একটি রোবট তখন অবাক বিস্ময়ে তাকিয়ে তাকিয়ে দেখলেন প্রযুক্তির কেরামতি। এমন ভাবে খবর পড়া শেষ করলো লিসা বুঝার উপায় ছিল না এটা মানুষ না রোবট।

জানা যায়, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাকে (আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স) কাজে লাগিয়ে সংবাদ সঞ্চালনায় বিপ্লব সৃষ্টি করল ওড়িশার টিভি চ্যানেল ওটিভি। বেসরকারি এই স্যাটেলাইট চ্যানেলটি মানুষের পরিবর্তে খবর পরিবেশনে ব্যবহার করল লিসা নামের এক রোবটকে। যা ঘিরে হইচই পড়ে গেছে।

এতদিন টেলিভিশনে ক্যামেরার সামনে বসে খবর পরিবেশন করত রক্ত মাংসের মানুষ। কিন্তু এবার সেই প্রথা ভাঙল ভারতের ওড়িশার এ খবরের চ্যানেলটি।

রোববার আনুষ্ঠানিকভাবে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার নিউজ অ্যাঙকরকে সামনে আনা হয়। লিসা নামের ওই রোবটকে দেখা যায় মানুষের মতই টেলিভিশনটির পর্দায় খবর পড়ছে। এখন থেকে দিনের একাধিক সময় খবর পড়ে শোনাবে রোবটটি।

প্রথমদিন সংবাদ পরিবেশিকা লিসাকে একটি হ্যাণ্ডলুমের শাড়ি ও মেরুন রঙের ব্লাউজে দেখা যায়। মজার বিষয় হচ্ছে, রোবটটি দেখতে অবিকল মানুষের মত। তার কথা বলার ধরণও চমকে দেওয়ার মত। শুধু ওড়িশা ভাষায় নয়, একইসঙ্গে ইংরেজিতেও বেশ স্বচ্ছন্দ লিসা। রোবটের কথা বলার ধরন থেকে সব কিছু উপস্থিত দর্শকদের রীতিমতো চমকে দিয়েছে।

ওড়িশা টেলিভিশন লিমিটেডের (ওটিভি) অন্যতম কর্ণধার জাগি মাঙ্গত পণ্ডা নিউজ অ্যাঙ্কর লিসাকে সকলের সঙ্গে আলাপ করিয়ে দেন। তিনি বলেন, ‘একটা সময় ছিল যখন কম্পিউটার একটি আশ্চর্যজনক জিনিস ছিল। কিন্তু সময় বদলেছে এবং আজকাল মানুষ ইন্টারনেটেই বেশি সময় ব্যয় করছে। বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে কাজ করেছে ওটিভি।’

তিনি আরও বলেন, ‘টেলিভিশন সম্প্রচারে এআই-এর ব্যবহার সবেমাত্র শুরু হয়েছে। সেই কারণে এআই নিউজ অ্যাঙ্কর লিসার মাধ্যনে নতুন মাইলফলক তৈরি হবে। লিসা ফ্রি-টু-এয়ার আঞ্চলিক টেলিভিশন সম্প্রচারের দুনিয়ায় প্রথম এআই অ্যাঙ্কর। সেইসঙ্গে প্রথম ওড়িশার এআই নিউজ অ্যাঙ্কর।’

মাঙ্গত পণ্ডা আরও বলেন, ‘লিসার অনেক ভাষায় কথা বলার ক্ষমতা রয়েছে। আপাতত ওটিভি নেটওয়ার্কের টেলিভিশন এবং ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের জন্য সে শুধুমাত্র ওড়িশা ও ইংরেজিতে সংবাদ উপস্থাপন করবে। আগামী দিনে লিসাকে আরও দক্ষ করে তোলার চেষ্টা চলছে। লিসাকে ইনস্টাগ্রাম, ফেসবুকের মতো সব সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে পাওয়া যাবে।’

প্রসঙ্গত, দিনে দিনে চ্যাট জিপিটি’র মতো আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স (এআই) টুলের জনপ্রিয়তা বাড়ছে। আগামী দিনে কৃত্রিম মেধা ব্যবহার করে কোন কোন ক্ষেত্রে বিপ্লব আসবে, তা নিয়ে চলছে আলোচনা। শুধুমাত্র প্রযুক্তি সংক্রান্ত চাকরির ক্ষেত্রে নয়, ভবিষ্যতে বিভিন্ন ক্ষেত্রেই রাজত্ব করবে এআই।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
X
Nagad

উপরে