logo
রোববার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ৫ আশ্বিন ১৪২৭

  ক্রীড়া ডেস্ক   ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

অবিশ্বাস্য কোহলিতে দুর্দান্ত ভারত

অবিশ্বাস্য কোহলিতে দুর্দান্ত ভারত
৯০* রান করার পথে বাউন্ডারি হাঁকাচ্ছেন বিরাট কোহলি -ওয়েবসাইট
কোনো কিছুতেই কাজ হলো না। দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে বিরাট কোহলি আবারও প্রমাণ করলেন, কেন তিনি বিশ্বসেরা। তার ঝড়ো সেঞ্চুরি ছুঁই ছুঁই ইনিংসে ওয়েস্ট ইন্ডিজের করা ২০৭ রানও সহজে টপকে গেছে ভারত। শুক্রবার কোহলি ম্যাজিকে হায়দ্রবাদে প্রথম টি২০তে স্বাগতিকরা জিতেছে ৬ উইকেটে।

উপভোগ্য এক ম্যাচ মঞ্চায়িত হলো রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামে। শিমরন হেটমায়ারের হাফসেঞ্চুরিতে নির্ধারিত ২০ ওভারে ক্যারিবিয়ান ৫ উইকেট হারিয়ে স্কোরে জমা করেছিল ২০৭ রান। কঠিন এই লক্ষ্য কোহলির হার না মানা ৯৪ রানের সঙ্গে লোকেশ রাহুলের (৬২) হাফসেঞ্চুরিতে ৪ উইকেট হারিয়ে ৮ বল আগেই জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ভারত। আর তাতে তিন ম্যাচের সিরিজ ১-০তে এগিয়েও গেছে স্বাগতিকরা।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিশাল সংগ্রহের পর ভারতের শুরুটা ছিল মন্থর। ঘরের মাঠে হারের শঙ্কাও হয়তো তখন জন্মেছিল স্বাগতিক দর্শকদের মনে। কিন্তু ভারতের জার্সিতে কোহলির ক্যারিয়ারসেরা টি-টোয়েন্টি ইনিংসে সব শঙ্কা উড়ে গিয়ে এসেছে দুর্দান্ত জয়। এর আগে ৭২ আন্তর্জাতিক টি২০তে কোহলির সর্বোচ্চ ইনিংস ছিল ৯০ রানের। হায়দ্রবাদে ৫০ বলে হার না মানা ৯৪ রানের ইনিংসে এগিয়ে নিলেন নিজের রেকর্ড।

শুরুতে সংগ্রাম করা কোহলি সময় গড়ানোর সঙ্গে হয়ে ওঠেন ভয়ঙ্কর। ক্যারিবীয় বোলারদের ওপর তান্ডব চালিয়ে ম্যাচ জেতানো ইনিংসটি সাজান ৬ বাউন্ডারি ও ৬ ছক্কায়। নিজের মুখোমুখি শেষ ২০ বলেই কোহলি করেছেন ৫৫ রান। কেসরিক উইলিয়ামসের বলে ছক্কা হাঁকিয়ে নিশ্চিত করেন তিনি ভারতের জয়। আর এই জয়ে অবদান রেখেছেন লোকেশ রাহুলও। ভারতীয় ওপেনার ৪০ বলে ৫ বাউন্ডারি ও ৪ ছক্কায় খেলে যান ৬২ রানের কার্যকরী ইনিংস। ঋষভ পান্তের ৯ বলে ১৮ রানও রেখেছে কার্যকরি ভূমিকা। হতাশার দিনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সবচেয়ে সফল বোলার খেরি পিয়েরি। এই স্পিনার ৪৪ রান খরচায় পেয়েছেন ২ উইকেট।

এর আগে ব্যাটিংয়ে তান্ডব চালায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ওপেনার লেন্ডল সিমন্স ছাড়া রান পেয়েছেন ক্যারিবিয়ান সব ব্যাটসম্যান। ব্যক্তিগত ২ রানে সিমন্স আউট হলেও কোনো প্রভাব পড়েনি সফরকারীদের ব্যাটিংয়ে। ভারতীয় বোলারদের ওপর ঝড় তোলেন এভিন লুইস ও ব্রেন্ডন কিং। একের পর এক বল সীমানা ছাড়া করেছেন লুইস। ওয়াশিংটন সুন্দরের বলে আউট হওয়ার আগে ৪০ রান করেন। কিং ২৩ বলে করেন ৩১ রান।

তাদের গড়ে দেওয়া ভিতের ওপর দাঁড়িয়ে ক্যারিবিয়ানদের রান বাড়িয়ে নিয়েছেন হেটমায়ার ও অধিনায়ক পোলার্ড। চার-ছক্কার ফুলঝুরিতে হাফসেঞ্চুরি পূরণ করেন হেটমায়ার। ৪১ বলে ২ বাউন্ডারি ও ৪ ছক্কায় তিনি করেন ৫৬ রান। তান্ডব চালিয়েছেন পোলার্ডও। ক্যারিরীয় অধিনায়ক ৩৭ রানের ইনিংসটি সাজান ১ বাউন্ডারি ও ৪ ছক্কায়। তাদের বিদায়ের পর ঝড় তোলেন হোল্ডার। মাত্র ৯ বলে খেলেন হার না মানা ২৪ রানের ইনিংস, যাতে ছিল এক চারের সঙ্গে ২ ছক্কার মার। দিনেশ রামদিন ৭ বলে অপরাজিত ছিলেন ১১ রানে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে