logo
বুধবার, ০৮ জুলাই ২০২০, ২৪ আষাঢ় ১৪২৬

  স্বদেশ ডেস্ক   ০১ জুলাই ২০২০, ০০:০০  

তিন জেলায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান

আইন অমান্য, স্বাস্থ্যবিধি না মানা ও জোর করে কিস্তি আদায়ের অভিযোগে চুয়াডাঙ্গার জীবননগর, শেরপুরের ঝিনাইগাতী ও নওগাঁর পোরশায় অভিযান চালিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় বিভিন্ন জনকে জরিমানার পাশাপাশি দুইজনকে কারাদন্ড দেওয়া হয়। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর:

জীবননগর (চুয়াডাঙ্গা) : চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে বিকাল ৪টার পর দোকান খোলা রাখায় কামাল হোসেন, সুজন মিয়া ও আ. হান্নান নামে তিন ব্যবসায়ীকে মোট ৪২০০ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। সোমবার জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সিব্বির আহাম্মেদ ও হাবিবুর রহমানের ভ্রাম্যমাণ আদালতে তাদের এ জরিমানা করা হয়।

ঝিনাইগাতী (শেরপুর) : শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার বিভিন্ন বাজারে সোমবার সন্ধ্যার পর ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন ইউএনও রুবেল মাহমুদ। এ সময় মাস্ক ব্যবহার না করা ও সামাজিক নিরাপত্তা বজায় না রাখায় সদর বাজারের হোটেল ব্যবসায়ী শেখ ফরিদ (৩০) ও কৃষ্ণ চন্দ্র বর্মনকে (২৮) এক মাসের বিনাশ্রম করাদন্ড দেওয়া হয়।

পোরশা (নওগাঁ) : নওগাঁর পোরশায় জোর করে গ্রাহকের কাছ থেকে কিস্তি আদায় করার অভিযোগে এক এনজিওকর্মীকে ১৫০০ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার কালিনগর গ্রামে ভ্রাম্যমাণ আদালতের এ অভিযান পরিচালনা করেন এসিল্যান্ড সেলিম আহমেদ। তিনি জানান, বেসরকারি সংস্থা আশার গাঙ্গুরিয়া শাখায় কর্মরত ওবায়দুর রহমান কালিনগর গ্রামে জোর করে কিস্তি আদায় করার অভিযোগ পেয়ে সেখানে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে