নাসিরনগরে লাইজু হত্যার রহস্য উদঘাটন

নাসিরনগরে লাইজু হত্যার রহস্য উদঘাটন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার ধরমন্ডল গ্রামের কিশোরী লাইজু আক্তার (১৬) হত্যার রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশ লাইজুর বাবা সনু মিয়া, ভাই আদম আলী ও মামা মাজু মিয়াকে গ্রেপ্তার করেছে। তাদের মধ্যে দুজন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

পুলিশ জানায়, লাইজু ধরমন্ডল গ্রামে তাদের বাড়ির পাশে মামার বাড়িতে থাকত। ২২ জুন দুপুরে লাইজুকে বাড়ির পাশে পাটখেতে এক যুবকের সঙ্গে দেখে মামা মাজু মিয়া। বিষয়টি লাইজুর বাবা সনু মিয়া ও মা সাফিয়া আক্তারকে জানায় মাজু।

পরদিন সনু মিয়া ও মাজু মিয়া লাইজুকে হত্যার পরিকল্পনা করে। পরিকল্পনা অনুযায়ী ২৩ জুন রাত সাড়ে ১০টার দিকে সনু মিয়া লাইজুকে মামার বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে আসে। পরে লাইজুকে তার গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করে সনু মিয়া, মাজু মিয়া ও লাইজুর ভাই আদম আলী। পরে তারা স্থানীয় একটি ডোবায় তার মরদেহ ফেলে দেয়।

শনিবার সকালে ধরমন্ডল গ্রামের লম্বাহাটি এলাকার একটি ডোবা থেকে লাইজুর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় লাইজুর মা বাদী হয়ে মামলা করেন।

নাসিরনগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কবির হোসেন জানান, লাইজুর লাশ উদ্ধারের পর পুলিশের পক্ষ থেকে মামলার কথা বলা হলেও প্রথমে তারা রাজি হয়নি। এতে করে পরিবারের প্রতি পুলিশের সন্দেহ হয়। এরপর লাইজুর মামাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে অন্যদের সম্পৃক্ততার কথা বেরিয়ে আসে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে